দেশে গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় আরও ২৩১ জনের মৃত্যু

গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় ২৩১ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে আক্রান্ত হয়েছে আরও ১৪৮৪৪ জন। । এই নিয়ে দেশে করোনায় মোট মৃত্যু ও আক্রান্ত যথাক্রমে ২০৯১৬ জন ও ১২৬৪৩২৮ জন। একদিনে পরীক্ষা অনুযায়ী সনাক্তের হার ২৯.৯৭ শতাংশ। রবিবার স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ্য হয়েছেন আরও ১৫০৫৪ জন। এই নিয়ে মোট সুস্থ্য হয়েছেন ১০৯৩২৬৬ জন। গত ২৪ ঘন্টায় দেশের ৬৪৮টি ল্যাবে মোট ৪৯৫২৯টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। ২৪ ঘন্টায় যে ২৩১ জন মারা গেছেন তার মধ্য ১৩৯ জন পুরুষ ও ৯২ জন নারী রয়েছে। মৃতদের মধ্য ২১৮ জন হাসপাতালে ও ১৩ জন বাসায় মারা গেছেন। এদের মধ্যে ১৩৭ জনের বয়স ষাটোর্ধ। মৃতদের মধ্য ঢাকা বিভাগের রয়েছে ৭৭ জন, রাজশাহী বিভাগের ১৩ জন, খুলনা বিভাগে ৪৪ জন, চট্রগ্রাম বিভাগে ৫৩ জন, রংপুর বিভাগে ১৮ জন, বরিশালে ৬ জন, সিলেট বিভাগে ৯ জন ও ময়মনসিংহ বিভাগে ১১ জন।

চিত্রনায়িকা একার বাসায় তল্লাশি চালিয়ে বিপুল পরিমান ইয়াবা, মদ ও গাজা উদ্ধার

এক গৃহকর্মীকে নির্যাতনের ঘটনায় চিত্রনায়িকা একাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এই সময় তার বাসায় তল্লাশি চালিয়ে বিপুল পরিমান ইয়াবা, বিদেশী মদ ও গাজা উদ্ধার করেছে পুলিশ। হাতিরঝিলের বন্ধু নিবাসের ৯ তলায় থাকেন নায়িকা একা। শনিবার একই এপার্টমেন্টের অন্য একটি ফ্লাটে তার বাসা পরিবর্তনের কথা ছিল।

একার বাসায় হাজেরা বেগম(৩০) নামে এক গৃহকর্মী ছুটা কাজ করেন। আজ একা হাজেরা বেগমকে তার সাথে থেকে বাসা স্থানান্তরে সহযোগিতার কথা বললে সে অন্য বাসায় কাজ থাকায় অপারগতা প্রকাশ করে। এতে একা ক্ষিপ্ত হয়ে হাজেরাকে শারিরীকভাবে নির্যাতন করে। আশপাশের লোকজন হাজেরাকে নির্যাতনের খবর পেয়ে ৯৯৯ নাম্বারে ফোন দেয়। এই সময় যথারীতি পুলিশ এসে গৃহকর্মীকে উদ্ধার ও নায়িকা একাকে গ্রেপ্তার করে। একার বিরুদ্ধে মামলা প্রক্রিয়াধীন আছে। এ পর্যন্ত ৩০টির মত ছবিতে অভিনয় করেছে এই অভিনেত্রী। মান্না-সাকিব খানসহ অনেক নায়কের সাথেই একা জুটিবন্ধ হয়েছে।

দেশে গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় আরও ২৩৯ জনের মৃত্যু

গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় ২৩৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে আক্রান্ত হয়েছে আরও ১৫২৭১ জন। । এই নিয়ে দেশে করোনায় মোট মৃত্যু ও আক্রান্ত যথাক্রমে ২০২৫৫ জন ও ১২২৬২৫৩ জন। একদিনে পরীক্ষা অনুযায়ী সনাক্তের হার ২৯.২০ শতাংশ। বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ্য হয়েছেন আরও ১৪৩৩৬ জন। এই নিয়ে মোট সুস্থ্য হয়েছেন ১০৫০২২০ জন। গত ২৪ ঘন্টায় দেশের ৬৩৯টি ল্যাবে মোট ৫২২৮২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। ২৪ ঘন্টায় যে ২৩৯ জন মারা গেছেন তার মধ্য ১২৩ জন পুরুষ ও ১১৬ জন নারী রয়েছে। মৃতদের মধ্য ২২৪ জন হাসপাতালে ও ১৫ জন বাসায় মারা গেছেন। এদের মধ্যে ১২৩ জনের বয়স ষাটোর্ধ। মৃতদের মধ্য ঢাকা বিভাগের রয়েছে ৭৬ জন, রাজশাহী বিভাগের ১৩ জন, খুলনা বিভাগে ৪৫ জন, চট্রগ্রাম বিভাগে ৫৭ জন, রংপুর বিভাগে ১১ জন, বরিশালে ১৪ জন, সিলেট বিভাগে ১৪ জন ও ময়মনসিংহ বিভাগে ৯ জন।

দেশে করোনায় মৃত্যুর নতুন রেকর্ড, ২৪ ঘন্টায় ২৫৮ জন

গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় ২৫৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এটিই দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর নতুন সর্বোচ্চ রেকর্ড। এর আগে এই রেকর্ড ছিল ২৪৭। একই সময়ে আক্রান্ত হয়েছে আরও ১৪৯২৫ জন। । এই নিয়ে দেশে করোনায় মোট মৃত্যু ও আক্রান্ত যথাক্রমে ১৯৭৭৯ জন ও ১১৯৪৭৫২ জন। একদিনে পরীক্ষা অনুযায়ী সনাক্তের হার ২৮.৪৪ শতাংশ। মঙ্গলবার স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ্য হয়েছেন আরও ১২৪৩৯ জন। এই নিয়ে মোট সুস্থ্য হয়েছেন ১০২২৪১৪ জন। গত ২৪ ঘন্টায় দেশের ৬৩৯টি ল্যাবে মোট ৫২৪৭৮ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। ২৪ ঘন্টায় যে ২৫৮ জন মারা গেছেন তার মধ্য ১৩৮ জন পুরুষ ও ১২০ জন নারী রয়েছে। মৃতদের মধ্য ২৪৩ জন হাসপাতালে ও ১৫ জন বাসায় মারা গেছেন। এদের মধ্যে ১৪৭ জনের বয়স ষাটোর্ধ। মৃতদের মধ্য ঢাকা বিভাগের রয়েছে ৮৪ জন, রাজশাহী বিভাগের ২১ জন, খুলনা বিভাগে ৫০ জন, চট্রগ্রাম বিভাগে ৬১ জন, রংপুর বিভাগে ১১ জন, বরিশালে ১৩ জন, সিলেট বিভাগে ৭ জন ও ময়মনসিংহ বিভাগে ১১ জন।

দেশে করোনায় প্রতি ১০ লক্ষে মৃত্যু ১১৬ জন ও আক্রান্ত ৬৯৯৮ জন

দেশে করোনা ভাইরাসের বিস্তার ক্রমেই বেড়ে চলছে। সেই সাথে বেড়েছে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু। দেশে এ পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে ১১৬৪৬৩৫ জন ও তার মধ্য মৃত্যু হয়েছে মোট ১৯২৭৪ জনের। আক্রান্তদের মধ্য এ পর্যন্ত সুস্থ্য হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৯৯৮৯২৩ জন। ১৪৬৪৩৮ জন এখনো চিকিৎসাধীন আছেন। এর মধ্য ১২৬৪ জন আছেন ক্রিটিকেল অবস্থায়।

এ পর্যন্ত প্রতি ১০ লক্ষে মৃত্যু হয়েছে ১১৬ ও প্রতি ১০ লক্ষে আক্রান্ত হয়েছে ৬৯৯৮ জন। অপরদিকে প্রতি ১০ লক্ষে টেস্ট হয়েছে ৪৪৭৯৫ জনের এবং মোট টেস্ট হয়েছে ৭৪৫৫২৮১ টি। মৃত্যুর সংখ্যার দিক থেকে বাংলাদেশের অবস্থান বিশ্বের মধ্য ২৯ তম। আর আক্রান্তের সংখ্যার দিক থেকে বাংলাদেশের অবস্থান এখন ২৬ তম। বিশ্বে আক্রান্ত ও মৃত্যুর দিক থেকে সবার ওপরে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে মোট আক্রান্ত হয়েছে ৩৫১৯৯৪৬৫ জন ও মোট মৃত্যু হয়েছে ৬২৬৭৬২ জন। আক্রান্তের দিক থেকে যুক্তরাষ্ট্রের পরেই রয়েছে ভারতের স্থান। ভারতে এ পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে মোট ৩১৪১১২৬২ জন। মৃত্যুর দিক থেকে ভারতের অবস্থান বিশ্বে ৩য় ও দেশটিতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৪২০৯৯৬ জনের। আক্রান্তের দিক থেকে ৩য় ও মৃত্যুর দিক থেকে ২য় অবস্থানে রয়েছে ব্রাজিল। দেশটিতে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা যথাক্রমে ১৯৬৮৮৬৬৩ জন ও ৪২০৯৯৬ জন।

টান টান উত্তেজনায় শেষ ম্যাচ জয়ে সিরিজ বাংলাদেশের

শেষ ম্যাচে ৫ ইউকেটে জিম্বাবুয়েকে পরাজিত করে ২-১ এ টি-২০ সিরিজ জিতেছে বাংলাদেশ। টস জিতে জিম্বাবুয়ে বাংলাদেশকে ফিল্ডিং এ পাঠায়। প্রথমে ব্যাট করে মাত্র ২৬ বলে তারা ৫০ রান তুলে। জিম্বাবুয়ের ব্যাটম্যানদের কাছে অসহায় হয়ে পড়ে বাংলাদেশের বোলাররা। তাসকিনের ১ ওভারে পরপর ৫টি চার মারেন মাদাবেরী। ফ্যাকাশে হয়ে যায় তাসকিনের মুখ। ৬৩ রানে জিম্বাবুয়ের প্রথম উইকেটের পতন ঘটে। সাইফুদ্দিনের বলে আউট হন মারুমানি। জিম্বাবুয়ের ২য় উইকেটের পতন হয় দলীয় ১২২ রানে। রেজিস চাকাবা সৌম্য সরকারের বলে সামীম পাটুয়ারীর হাতে ক্যাচ দিয়ে প্যাভেলিয়নে ফিরে যান। তার আগে তিনি ২২ বলে ৪৮ রান করেন। আর ১২৫ রানে জিম্বাবুয়ের ৩য় উইকেটের পতন ঘটে। শূন্য রানে আউট হন সিকান্দর রাজা। স্বাগতিকদের ৪র্থ উইকেটের পতন ঘটে ১৪৬ রানের মাথায়। এই সময়ে মাদেবেরী ৩৬ বলে ৫৪ রান করে সাকিব আল হাসানের বলে শরিফুলের হাতে ক্যাচ দিয়ে আউট হন। পঞ্চম উইকেটের পতন হয় দলীয় ১৭৫ রানের মাথায়। শেষ পর্যন্ত স্বাগতিকদের স্কোর দাঁড়ায় ১৯৩/৫(২০ ওভার)।

১৯৪ রানে জয়ের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশের প্রথম উইকেটের পতন ঘটে দলীয় ২০ রানের মাথায়। ব্যক্তিগত ৩ রান করে আউট হন মোহাম্মদ নাইম। দলীয় ৭০ রানে ১৩ বলে ২টি ছক্কা ও ১টি চারের সাহায্যে ২৫ রান করে আউট হন সাকিব আল হাসান। দলীয় ১৩৩রানে আউট হন সৌম্য সরকার। তার আগে তিনি ৪৯ বলে ৬৮ রানের ইনিংস খেলে দলকে লড়াইয়ে ফিরান। তারপর মাসাকাডজার বলে বোল্ড হয়ে ৫ বল খেলে ২টি ছক্কার সাহায্যে ১৪ রান করে আউট হন আফিফ হোসেন। এই সময় দলীয় রান ছিলা ১৫০/৪। দলীয় রান যখন ১৮৭ মাহমুদুল্লাহ আউট হন ২৮ বলে ৩৪ রান করে। ১৫ বলে ৩১ রান করে দলকে জয় উপহার দিয়ে অপরাজিত থাকেন তরুন হিটার সামীম পাটুয়ারী। শেষ পর্যন্ত ৪ বল বাকি রেখেই ৫ উইকেটের জয় পায় বাংলাদেশ।

ম্যান ও ম্যান অব দ্য সিরিজ হয়েছেন সৌম্য সরকার। স্কোর -জিম্বাবুয়েঃ ১৯৩/৫( ২০ ওভার), বাংলাদেশ-১৯৪/৫(১৯.২ ওভার)

দেশে করোনায় মৃত্যুর নতুন রেকর্ড ২৩১ জন

গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় ২৩১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এটিই দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর নতুন রেকর্ড। এর আগে এই রেকর্ড ছিল ২৩০। একই সময়ে আক্রান্ত হয়েছে আরও ১৩৩২১ জন। । এই নিয়ে দেশে করোনায় মোট মৃত্যু ও আক্রান্ত যথাক্রমে ১৮১২৫ জন ও ১১১৭৩১০ জন। একদিনে পরীক্ষা অনুযায়ী সনাক্তের হার ২৯.৫৯ শতাংশ। মোট পরীক্ষা বিবেচনায় সনাক্তের হার ১৫.৩০ শতাংশ। সোমবার স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ্য হয়েছেন আরও ৯৩৩৫ জন। এই নিয়ে মোট সুস্থ্য হয়েছেন ৯৪১৩৪৩ জন। গত ২৪ ঘন্টায় দেশের ৬৩৮টি ল্যাবে মোট ৪৫০১২ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। ২৪ ঘন্টায় যে ২৩১ জন মারা গেছেন তার মধ্য ১৩৬ জন পুরুষ ও ৯৫ জন নারী রয়েছে। মৃতদের মধ্য ২১৩ জন হাসপাতালে ও ১৮ জন বাসায় মারা গেছেন। এদের মধ্যে ১৩৯ জনের বয়স ষাটোর্ধ। মৃতদের মধ্য ঢাকা বিভাগের রয়েছে ৭৩ জন, রাজশাহী বিভাগের ১৬ জন, খুলনা বিভাগে ৫৭ জন, চট্রগ্রাম বিভাগে ৪৩ জন, রংপুর বিভাগে ১৭ জন, বরিশালে ৬ জন, সিলেট বিভাগে ৮ জন ও ময়মনসিংহ বিভাগে ১১ জন রয়েছে।

দেশে করোনায় আরও ২২৫ জনের প্রানহানি

গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় ২২৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে আক্রান্ত হয়েছে আরও ১১৫৭৮ জন। । এই নিয়ে দেশে করোনায় মোট মৃত্যু ও আক্রান্ত যথাক্রমে ১৭৮৯৪ জন ও ১১০৩৯৮৯ জন। একদিনে পরীক্ষা অনুযায়ী সনাক্তের হার ২৯.০৯ শতাংশ। মোট পরীক্ষা বিবেচনায় সনাক্তের হার ১৫.২২ শতাংশ। রবিবার স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ্য হয়েছেন আরও ৮৮৪৫ জন। এই নিয়ে মোট সুস্থ্য হয়েছেন ৯৩২০০৮ জন। গত ২৪ ঘন্টায় দেশের ৬২৭টি ল্যাবে মোট ৩৯৮০৬ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। ২৪ ঘন্টায় যে ২২৫ জন মারা গেছেন তার মধ্য ১২৩ জন পুরুষ ও ১০২ জন নারী রয়েছে। মৃতদের মধ্য ২১২ জন হাসপাতালে ও ১৩ জন বাসায় মারা গেছেন। এদের মধ্যে ১১৫ জনের বয়স ষাটোর্ধ। মৃতদের মধ্য ঢাকা বিভাগের রয়েছে ৬০ জন, রাজশাহী বিভাগের ২০ জন, খুলনা বিভাগে ৫৪ জন, চট্রগ্রাম বিভাগে ৪০ জন, রংপুর বিভাগে ১০ জন, বরিশালে ৯ জন, সিলেট বিভাগে ১৪ জন ও ময়মনসিংহ বিভাগে ১৪ জন রয়েছে।

গত ২৪ ঘন্টায় দেশে করোনায় আরও ২০৪ জনের মৃত্যু

গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় ২০৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে আক্রান্ত হয়েছে আরও ৮৪৮৯ জন। । এই নিয়ে দেশে করোনায় মোট মৃত্যু ও আক্রান্ত যথাক্রমে ১৭৬৬৯ জন ও ১০৯২৪৪১১ জন। একদিনে পরীক্ষা অনুযায়ী সনাক্তের হার ২৯.০৬ শতাংশ। মোট পরীক্ষা বিবেচনায় সনাক্তের হার ১৫.১৪ শতাংশ। শনিবার স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ্য হয়েছেন আরও ৮৮২০ জন। এই নিয়ে মোট সুস্থ্য হয়েছেন ৯২৩১৬৩ জন। গত ২৪ ঘন্টায় দেশের ৬২৭টি ল্যাবে মোট ২৯২১৪ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। ২৪ ঘন্টায় যে ২০৪ জন মারা গেছেন তার মধ্য ১২৫ জন পুরুষ ও ৭৯ জন নারী রয়েছে। মৃতদের মধ্য ২০২ জন হাসপাতালে ও ২ জন বাসায় মারা গেছেন। এদের মধ্যে ১০২ জনের বয়স ষাটোর্ধ। মৃতদের মধ্য ঢাকা বিভাগের রয়েছে ৮২ জন, রাজশাহী বিভাগের ২০ জন, খুলনা বিভাগে ৪৯ জন, চট্রগ্রাম বিভাগে ৩২ জন, রংপুর বিভাগে ১০ জন, বরিশালে ৫ জন, সিলেট বিভাগে ২ জন ও ময়মনসিংহ বিভাগে ৪ জন রয়েছে।

গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় মৃত্যু ও আক্রান্ত যথাক্রমে ২২৬ ও ১২২৩৬ জন

গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় ২২৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে আক্রান্ত হয়েছে আরও ১২২৩৬ জন। এটিই দেশে ২৪ ঘন্টায় করোনায় আক্রান্তের নতুন রেকর্ড। এই নিয়ে দেশে করোনায় মোট মৃত্যু ও আক্রান্ত যথাক্রমে ১৭২৭৮ জন ও ১০৭১৭৭৪ জন। একদিনে পরীক্ষা অনুযায়ী সনাক্তের হার ২৭.২৩ শতাংশ। মোট পরীক্ষা বিবেচনায় সনাক্তের হার ১৫ শতাংশ। বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ্য হয়েছেন আরও ৮৩৯৫ জন। এই নিয়ে মোট সুস্থ্য হয়েছেন ৯০৫৮০৭ জন। গত ২৪ ঘন্টায় দেশের ৬১৩টি ল্যাবে মোট ৪৪৯৪১ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। ২৪ ঘন্টায় যে ২২৬ জন মারা গেছেন তার মধ্য ১৪০ জন পুরুষ ও ৮৬ জন নারী রয়েছে। মৃতদের মধ্য ২০৬ জন হাসপাতালে ও ২০ জন বাসায় মারা গেছেন। এদের মধ্যে ১২১ জনের বয়স ষাটোর্ধ। মৃতদের মধ্য ঢাকা বিভাগের রয়েছে ৭৪ জন, রাজশাহী বিভাগের ২৪ জন, খুলনা বিভাগে ৫২ জন, চট্রগ্রাম বিভাগে ৪২ জন, রংপুর বিভাগে ১৩ জন, বরিশালে ৬ জন, সিলেট বিভাগে ৫ জন ও ময়মনসিংহ বিভাগে ১০ জন রয়েছে।

দেশে করোনা সংক্রমন শুরুর পর গত ২৪ ঘন্টায় সনাক্তের নতুন রেকর্ড ১৩৭৬৮

গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় ২২০ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে আক্রান্ত হয়েছে আরও ১৩৭৬৮ জন। এটিই দেশে ২৪ ঘন্টায় করোনায় আক্রান্তের নতুন রেকর্ড। এই নিয়ে দেশে করোনায় মোট মৃত্যু ও আক্রান্ত যথাক্রমে ১৬৬৩৯ জন ও ১০৩৪৯৫৭ জন। একদিনে পরীক্ষা অনুযায়ী সনাক্তের হার ৩১.২৪ শতাংশ। মোট পরীক্ষা বিবেচনায় সনাক্তের হার ১৪.৭৫ শতাংশ। সোমবার স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ্য হয়েছেন আরও ৭০২০ জন। এই নিয়ে মোট সুস্থ্য হয়েছেন ৮৮১৫২১ জন। গত ২৪ ঘন্টায় দেশের ৬১৩টি ল্যাবে মোট ৪৪০৬৭ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। ২৪ ঘন্টায় যে ২২০ জন মারা গেছেন তার মধ্য ১৪২ জন পুরুষ ও ৭৮ জন নারী রয়েছে। মৃতদের মধ্য ২০৭ জন হাসপাতালে ও ১৩ জন বাসায় মারা গেছেন। এদের মধ্যে ১২১ জনের বয়স ষাটোর্ধ। মৃতদের মধ্য ঢাকা বিভাগের রয়েছে ৬৪ জন, রাজশাহী বিভাগের ২৩ জন, খুলনা বিভাগে ৫৫ জন, চট্রগ্রাম বিভাগে ৩৭ জন, রংপুর বিভাগে ১৮ জন, বরিশালে ৪ জন, সিলেট বিভাগে ৬ জন ও ময়মনসিংহ বিভাগে ১৩ জন রয়েছে।

দেশে গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় মৃত্যুর নতুন রেকর্ড ২৩০

গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় ২৩০ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে আক্রান্ত হয়েছে আরও ১১৮৭৪ জন। এটিই দেশে করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর নতুন রেকর্ড। এই নিয়ে দেশে করোনায় মোট মৃত্যু ও আক্রান্ত যথাক্রমে ১৬৪১৯ জন ও ১০২১১৮৯ জন। একদিনে পরীক্ষা অনুযায়ী সনাক্তের হার ২৯.৬৭ শতাংশ। মোট পরীক্ষা বিবেচনায় সনাক্তের হার ১৪.৬৫ শতাংশ। রবিবার স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ্য হয়েছেন আরও ৬৩৬২ জন। এই নিয়ে মোট সুস্থ্য হয়েছেন ৮৭৪৫০১ জন। গত ২৪ ঘন্টায় দেশের ৬১৩টি ল্যাবে মোট ৪০০১৫ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। ২৪ ঘন্টায় যে ১৮৫ জন মারা গেছেন তার মধ্য ১৩৩ জন পুরুষ ও ৯৭ জন নারী রয়েছে। মৃতদের মধ্য ২১১ জন হাসপাতালে ও ১৯ জন বাসায় মারা গেছেন। এদের মধ্যে ১১১ জনের বয়স ষাটোর্ধ। মৃতদের মধ্য ঢাকা বিভাগের রয়েছে ৫৬ জন, রাজশাহী বিভাগের ২৬ জন, খুলনা বিভাগে ৬৬ জন, চট্রগ্রাম বিভাগে ৩৯ জন, রংপুর বিভাগে ২২ জন, বরিশালে ৮ জন, সিলেট বিভাগে ৮ জন ও ময়মনসিংহ বিভাগে ৫ জন রয়েছে।

দেশে গত ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু ও আক্রান্ত কমেছে

গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় ১৮৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে আক্রান্ত হয়েছে আরও ৮৭৭২ জন। এই নিয়ে দেশে করোনায় মোট মৃত্যু ও আক্রান্ত যথাক্রমে ১৬১৮৯ জন ও ১০৯৩১৫ জন। একদিনে পরীক্ষা অনুযায়ী সনাক্তের হার ৩১.৪৬ শতাংশ। মোট পরীক্ষা বিবেচনায় সনাক্তের হার ১৪.৫৬ শতাংশ। শনিবার স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ্য হয়েছেন আরও ৫৭৫৫ জন। এই নিয়ে মোট সুস্থ্য হয়েছেন ৮৬৮১৩৯ জন। গত ২৪ ঘন্টায় দেশের ৬০৫টি ল্যাবে মোট ২৭৮৮৪ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। ২৪ ঘন্টায় যে ১৮৫ জন মারা গেছেন তার মধ্য ১২১ জন পুরুষ ও ৬৪ জন নারী রয়েছে। মৃতদের মধ্য ১৭৩ জন হাসপাতালে ও ১২ জন বাসায় মারা গেছেন। এদের মধ্যে ৯২ জনের বয়স ষাটোর্ধ। মৃতদের মধ্য ঢাকা বিভাগের রয়েছে ৭০ জন, রাজশাহী বিভাগের ১৩ জন, খুলনা বিভাগে ৫১ জন, চট্রগ্রাম বিভাগে ২০ জন, রংপুর বিভাগে ১১ জন, বরিশালে ১০ জন, সিলেট বিভাগে ৭ জন ও ময়মনসিংহ বিভাগে ৩ জন রয়েছে।

২৪ ঘন্টায় করোনায় মৃত্যুর নতুন রেকর্ড ২১২

গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় ২১২ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে আক্রান্ত হয়েছে আরও ১১৩২৪ জন। দেশে করোনা অতিমারি শুরুর পর থেকে এটি একদিনে করোনায় সর্বোচ্চ মৃত্যু। এই নিয়ে দেশে করোনায় মোট মৃত্যু ও আক্রান্ত যথাক্রমে ১৬০০৪ জন ও ১০০০৫৪৩ জন। একদিনে পরীক্ষা অনুযায়ী সনাক্তের হার ৩০.৯৫ শতাংশ। মোট পরীক্ষা বিবেচনায় সনাক্তের হার ১৪.৪৯ শতাংশ। শুক্রবার স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ্য হয়েছেন আরও ৬০৩৮ জন। এই নিয়ে মোট সুস্থ্য হয়েছেন ৮৬২৩৮৪ জন। গত ২৪ ঘন্টায় দেশের ৬০৫টি ল্যাবে মোট ৩৬৫৮৬ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। ২৪ ঘন্টায় যে ২১২ জন মারা গেছেন তার মধ্য ১১৯ জন পুরুষ ও ৯৩ জন নারী রয়েছে। মৃতদের মধ্য ১৯৬ জন হাসপাতালে ও ১৬ জন বাসায় মারা গেছেন। এদের মধ্যে ৯০ জনের বয়স ষাটোর্ধ। মৃতদের মধ্য ঢাকা বিভাগের রয়েছে ৫৩ জন, রাজশাহী বিভাগের ২৩ জন, খুলনা বিভাগে ৭৯ জন, চট্রগ্রাম বিভাগে ২৬ জন, রংপুর বিভাগে ১২ জন, বরিশালে ৫ জন, সিলেট বিভাগে ৬ জন ও ময়মনসিংহ বিভাগে ৮ জন রয়েছে।

গত ২৪ ঘন্টায় দেশে করোনায় ২য় সর্বোচ্চ মৃত্যু ১৯৯ জন

গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় ১৯৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে আক্রান্ত হয়েছে আরও ১১৬৫১ জন। দেশে করোনা অতিমারি শুরুর পর থেকে এটি একদিনে করোনায় ২য় সর্বোচ্চ মৃত্যু। এই নিয়ে দেশে করোনায় মোট মৃত্যু ও আক্রান্ত যথাক্রমে ১৫৭৯২ জন ও ৯৮৯২১৯ জন। একদিনে পরীক্ষা অনুযায়ী সনাক্তের হার ৩১.৬২ শতাংশ। মোট পরীক্ষা বিবেচনায় সনাক্তের হার ১৪.৪১ শতাংশ। বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ্য হয়েছেন আরও ৫৮৪৪ জন। এই নিয়ে মোট সুস্থ্য হয়েছেন ৮৫৬৩৪৬ জন। গত ২৪ ঘন্টায় দেশের ৬০৫টি ল্যাবে মোট ৩৬৮৫০ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। ২৪ ঘন্টায় যে ১৯৯ জন মারা গেছেন তার মধ্য ১৩৩ জন পুরুষ ও ৬৬ জন নারী রয়েছে। মৃতদের মধ্য ১৮৭ জন হাসপাতালে ও ১২ জন বাসায় মারা গেছেন। এদের মধ্যে ১০৭ জনের বয়স ষাটোর্ধ। মৃতদের মধ্য ঢাকা বিভাগের রয়েছে ৬৫ জন, রাজশাহী বিভাগের ১৫ জন, খুলনা বিভাগে ৫৫ জন, চট্রগ্রাম বিভাগে ৩৭ জন, রংপুর বিভাগে ৯ জন, বরিশালে ৩ জন, সিলেট বিভাগে ৫ জন ও ময়মনসিংহ বিভাগে ১০ জন রয়েছে।

দেশে গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় সবচেয়ে বেশী মৃত্যু ২০১

গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় ২০১ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে আক্রান্ত হয়েছে আরও ১১১৬২ জন। দেশে করোনা অতিমারি শুরুর পর থেকে এটিই একদিনে করোনায় সর্বোচ্চ মৃত্যু। এই নিয়ে দেশে করোনায় মোট মৃত্যু ও আক্রান্ত যথাক্রমে ১৫৫৯৩ জন ও ৯৭৭৫৬৮ জন। একদিনে পরীক্ষা অনুযায়ী সনাক্তের হার ৩১.৩২ শতাংশ। মোট পরীক্ষা বিবেচনায় সনাক্তের হার ১৪.১৩ শতাংশ। বুধবার স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ্য হয়েছেন আরও ৫৯৮৭ জন। এই নিয়ে মোট সুস্থ্য হয়েছেন ৮৫০৫০২ জন। গত ২৪ ঘন্টায় দেশের ৬০৫টি ল্যাবে মোট ৩৫৬৩৯টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। ২৪ ঘন্টায় যে ২০১ জন মারা গেছেন তার মধ্য ১১৯ জন পুরুষ ও ৮২ জন নারী রয়েছে। মৃতদের মধ্য ১৮৯ জন হাসপাতালে ও ১২ জন বাসায় মারা গেছেন। এদের মধ্যে ১১৫ জনের বয়স ষাটোর্ধ। মৃতদের মধ্য ঢাকা বিভাগের রয়েছে ৫৮ জন, রাজশাহী বিভাগের ১৮ জন, খুলনা বিভাগে ৬৬ জন, চট্রগ্রাম বিভাগে ২১ জন, রংপুর বিভাগে ১৪ জন, বরিশালে ৭ জন, সিলেট বিভাগে ৯ জন ও ময়মনসিংহ বিভাগে ৮ জন রয়েছে।

দেশে করোনা মহামারি শুরুর পর গত ২৪ ঘন্টায় সবচেয়ে বেশী আক্রান্ত ১১৫২৫

গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় ১৬৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে আক্রান্ত হয়েছে আরও ১১৫২৫ জন। করোনা অতিমারি শুরুর পর থেকে এটিই একদিনে করোনায় সর্বোচ্চ আক্রান্ত। এই নিয়ে দেশে করোনায় মোট মৃত্যু ও আক্রান্ত যথাক্রমে ১৫৩৯২ জন ও ৯৬৬৪০৬ জন। একদিনে পরীক্ষা অনুযায়ী সনাক্তের হার ৩১.৪৬ শতাংশ। আর এটিই দেশে করোনা সনাক্তের সর্বোচ্চ হার। মোট পরীক্ষা বিবেচনায় সনাক্তের হার ১৪.২২ শতাংশ। মঙ্গলবার স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ্য হয়েছেন আরও ৫৪৩৩ জন। এই নিয়ে মোট সুস্থ্য হয়েছেন ৮৪৪৫১৫ জন। গত ২৪ ঘন্টায় দেশের ৬০৫টি ল্যাবে মোট ৩৬৬৩১ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। ২৪ ঘন্টায় যে ১৬৩ জন মারা গেছেন তার মধ্য ৯৮ জন পুরুষ ও ৬৫ জন নারী রয়েছে। মৃতদের মধ্য ১৫৮ জন হাসপাতালে ও ৫ জন বাসায় মারা গেছেন। এদের মধ্যে ৯১ জনের বয়স ষাটোর্ধ। মৃতদের মধ্য ঢাকা বিভাগের রয়েছে ৪৫ জন, রাজশাহী বিভাগের ২৪ জন, খুলনা বিভাগে ৪৬ জন, চট্রগ্রাম বিভাগে ২৪ জন, রংপুর বিভাগে ১১ জন, বরিশালে ৬ জন, সিলেট বিভাগে ২ জন ও ময়মনসিংহ বিভাগে ৫ জন রয়েছে।

দেশে করোনা মহামারি শুরুর পর গত ২৪ ঘন্টায় সবচেয়ে বেশী আক্রান্ত ও মৃত্যু

গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় ১৬৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে আক্রান্ত হয়েছে আরও ৯৯৬৪ জন। করোনা অতিমারি শুরুর পর থেকে এটিই একদিনে করোনায় সর্বোচ্চ মৃত্যু ও আক্রান্ত। এই নিয়ে দেশে করোনায় মোট মৃত্যু ও আক্রান্ত যথাক্রমে ১৫২২৯ জন ও ৯৫৪৮৮১ জন। একদিনে পরীক্ষা অনুযায়ী সনাক্তের হার ২৯.৩০ শতাংশ। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষায় সনাক্তের হার ১৪.১৩ শতাংশ। সোমবার স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ্য হয়েছেন আরও ৫১৮৫ জন। এই নিয়ে মোট সুস্থ্য হয়েছেন ৮৩৯০৮২ জন। গত ২৪ ঘন্টায় দেশের ৬০৫টি ল্যাবে মোট ৩৪০০২ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এ পর্যন্ত মোট ৬৭৫৭৫৬২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। ২৪ ঘন্টায় যে ১৬৪ জন মারা গেছেন তার মধ্য ১০৯ জন পুরুষ ও ৫৫ জন নারী রয়েছে। মৃতদের মধ্য ১৪৪ জন হাসপাতালে ও ১৫ জন বাসায় মারা গেছেন। এদের মধ্যে ৮৩ জনের বয়স ষাটোর্ধ। মৃতদের মধ্য ঢাকা বিভাগের রয়েছে ৪০ জন, রাজশাহী বিভাগের ১৬ জন, খুলনা বিভাগে ৫৫ জন, চট্রগ্রাম বিভাগে ১৮ জন, রংপুর বিভাগে ১৬ জন, বরিশালে ৯ জন, সিলেট বিভাগে ৮ জন ও ময়মনসিংহ বিভাগে ২ জন রয়েছে।

শীঘ্রই আবার চালু হচ্ছে টিকার নিবন্ধন, সর্বনিন্ম বয়স হবে ৩৫

দেশব্যপী আবারও করোনাভাইরাসের টিকার নিবন্ধন কার্যক্রম চালু হতে যাচ্ছে। এবার টিকা প্রদানের ক্ষেত্রে সর্বনিন্ম বয়স রাখা হবে ৩৫। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) অধ্যাপক ড. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশিদ আলম আজ (সোমবার) গনমাধ্যমকে এই তথ্য জানিয়েছেন। তিনি বলেন বর্তমানে চল্লিশোর্ধ্ব ব্যক্তিরা টিকার জন্য নিবন্ধন করতে পারছেন। এখন থেকে পয়ত্রিশোর্ধ্ব ব্যক্তিরাও নিবন্ধন করে টিকা নিতে পারবেন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্যমতে ৩রা জুলাই পর্যন্ত করোনা ভাইরাসের টিকার জন্য নিবন্ধন করেছেন মোট ৭২৮২৮৬৯ জন। এর মধ্য প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ মিলিয়ে অ্যাস্ট্রাজেনেকার ১০১১১৭২২ ডোজ, সিনোফার্মের ৮০৯৮৫ ডোজ ও ফাইজারের ২৭৪২ ডোজ টিকা প্রয়োগ করা হয়েছে।

দেশে বেড়েই চলেছে করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যু

গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় ১৫৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এটিই একদিনে করোনায় সর্বোচ্চ মৃত্যু। একই সময়ে আক্রান্ত হয়েছে আরও ৮৬৬১ জন। এই নিয়ে দেশে করোনায় মোট মৃত্যু ও আক্রান্ত যথাক্রমে ১৫০৬৫ জন ও ৯৪৪৯১৭ জন। একদিনে পরীক্ষা অনুযায়ী সনাক্তের হার ২৮.৯৯ শতাংশ। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষায় সনাক্তের হার ১৪.০৫ শতাংশ। রবিবার স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ্য হয়েছেন আরও ৪৬৯৮ জন। এই নিয়ে মোট সুস্থ্য হয়েছেন ৮৩৩৮৯৭ জন। গত ২৪ ঘন্টায় দেশের ৫৬৬টি ল্যাবে মোট ২৯৮৭৯ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এ পর্যন্ত মোট ৬৭২৩৫৬০টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। ২৪ ঘন্টায় যে ১৫৩ জন মারা গেছেন তার মধ্য ৯৬ জন পুরুষ ও ৫৭ জন নারী রয়েছে। মৃতদের মধ্য ১৪৪ জন হাসপাতালে ও ৯ জন বাসায় মারা গেছেন। এদের মধ্যে ৭০ জনের বয়স ষাটোর্ধ। মৃতদের মধ্য ঢাকা বিভাগের রয়েছে ৪৬ জন, রাজশাহী বিভাগের ১২ জন, খুলনা বিভাগে ৫১ জন, চট্রগ্রাম বিভাগে ১৫ জন, রংপুর বিভাগে ১৫ জন, বরিশালে ৩ জন, সিলেট বিভাগে ২ জন ও ময়মনসিংহ বিভাগে ৯ জন রয়েছে।

1 2 3 86