হোয়াইট হাউজ নিয়ে ইভানা ট্রাম্প ও মেলানিয়া ট্রাম্পের মধ্য যুদ্ধ

অনলাইন ডেস্কঃ বিডি খবর ৩৬৫ ডটকম

আমেরিকার হোয়াইট হাউজ নিয়ে ইভানা ট্রাম্প ও মেলানিয়া ট্রাম্পের মধ্য রীতিমত যুদ্ধ শুরু হয়ে গেছে। এ যুদ্ধে দুজনই জয়ের আশা করছে। ইভানা ট্রাম্প হচ্ছে ডুনাল্ড ট্রাম্পের সাবেক প্রথম স্ত্রী। অপরদিকে মেলানিয়া ট্রাম্প হচ্ছে তার তৃতীয় ও শেষ স্ত্রী। হোয়াইট হাউজ দখলে নেওয়ার জন্য দুজনই এখন বাকযুদ্ধে লিপ্ত।

সম্প্রতি ইভানা ট্রাম্প একটি বই লিখেন যার শিরোনাম দেন ‘রাইজিং ট্রাম্প’। এই বইটি প্রকাশ হওয়ার পরই ইভানা ট্রাম্প হোয়াইট হাউজ নিয়ে নানা রকমের মন্তব্য শুরু করেন। তিনি বলেন, ট্রাম্পের প্রথম স্ত্রী তিনি, হোয়াইট হাউজের দাবীদার তিনিই। আমেরিকার ফাস্টলেডি তিনিই। তার ঘরে ট্রাম্পের তিন সন্তানও রয়েছে। তারা হলেন ইভাস্কা, ডুনাল্ড জুনিয়র ও এরিক।

মেলানিয়াকে উদেশ্য করে ইভানা বলেন, ওয়াশিংটনের জীবনে নিশ্চয়ই অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছেন মেলানিয়া। কিন্তু তিনি এখনই হোয়াইট হাউসে গিয়ে টানা ৪৫ মিনিট ভাষণ দিতে পারবেন। কোনও চুক্তি পড়ে, বুঝে তা নিয়ে আলোচনাও করতে পারবেন। শুধু, নিজের স্বাধীনতা ভালোবাসেন বলেই ওয়াশিংটন যাচ্ছেন না। এমনকি প্রাক্তন স্বামীকে ফোনও করেন না যখন তখন, যাতে মেলানিয়ার মনে হিংসা বা নিরাপত্তাহীনতা না তৈরি হয়। 
ইভানার মন্তব্যের জবাবে মেলানিয়ার হয়ে তাঁর মুখপাত্র স্টেফানি গ্রিশাম বলেন, একজন প্রাক্তনের কাছ থেকে এধরনের মন্তব্য ভিত্তিহীন। নিজের লেখা বই বিক্রির জন্য সবার নজর নিজের দিকে ঘোরাতে এসব বলে যাচ্ছেন ইভানা। মেলানিয়া ওয়াশিংটনের ব্যস্ত জীবন খুবই উপভোগ করছেন। একজন প্রেসিডেন্টের স্ত্রী হিসেবে নিজেকে তৈরি করেছেন সঠিকভাবেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *