অভিযোগ ছাড়াই আটকের ক্ষমতা পেল তুরস্কের পুলিশ

অনলাইন ডেস্কঃ বিডিখবর৩৬৫.কম
অভিযোগ ছাড়াই আটকের ক্ষমতা পেল তুরস্কের পুলিশ
তুরস্ক সরকার সেনা অভ্যুত্থানচেষ্টার পর পুলিশেন ক্ষমতা বাড়িয়েছে । এখন কোনো অভিযোগ ছাড়াই কাউকে এক মাস আটক রাখতে পারবে দেশটির পুলিশ । প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগানের মন্ত্রিসভা জরুরি আইনের ক্ষমতা ব্যবহার করে  পুলিশের ক্ষমতা বাড়ানোর এ প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে। ষড়যন্ত্রে জড়িত থাকার অভিযোগে এক হাজারের বেশি বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করা হবে বলেও তুরস্ক ঘোষণা দেয়, ।
বার্তা সংস্থা এএফপি জানায়, অভ্যুত্থানচেষ্টায় জড়িত থাকার অভিযোগে এক সপ্তাহে এরদোগানের সরকার ১২ হাজারের বেশি নাগরিককে গ্রেফতার করেছে। গত ১৫ জুলাই অভ্যুত্থান চেষ্টার পেছনে যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক আলেম ফেতুল্লাহ গুলানকে সন্দেহ করছে তুরস্ক। গণগ্রেফতারের মধ্যেই তাঁর এক আত্মীয়কে গ্রেফতার করা হয়েছে।
এ বিষয় ইতালির প্রধানমন্ত্রী মাত্তেও রেনজি সতর্ক করে বলেন, ‘একটি দেশ তার নিজের বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ও সাংবাদিকদের বন্দি করছে। এর ফল দেশটি নিজের ভবিষ্যৎকেই কারাবন্দি করছে’।তুরস্কের ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) বিষয়ক মন্ত্রী ওমার সেলিক বলেন, ইউরোপের নেতারা হুমকির মাত্রা বিষয়টি বিবেচনায় রাখছেন না এবং ১৫ জুলাইয়ের রক্তপাতের পর কেউ তুরস্কের কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে দাঁড়াননি। তিনি বলেন, ‘এখানে আসুন এবং দেখুন ব্যাপারটা কী রকম সাংঘাতিক। যাঁরা তুরস্ককে দূর থেকে দেখছেন, তাঁরা ভাবছেন এটা পোকেমন খেলা।’ তুরস্কের মন্ত্রী বলেন, আল-কায়েদার প্রয়াত নেতা ওসামা বিন লাদেন বা ইসলামিক স্টেটের চেয়ে গুলান ভয়ংকর।
সেলিক বলেন, অভ্যুত্থানচেষ্টার দুঃসময়ের পরও ইউরোপীয় ইউনিয়নে যোগদান করতে তুরস্ক অঙ্গীকারবদ্ধ এবং ইউরোপে অভিবাসীদের স্রোত বন্ধ করতে তারা ইইউর সঙ্গে চুক্তি করবে। বিবিসি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *