গান

দেশের গান

ভারতীয় বাংলা

অঞ্জন দত্ত

মেরি এন মেরি

পোরানো গিটার

ক্যালসিয়য়াম

রঞ্জনা আমি আর আসব না

২৪৪১১৩৯

রমা

তুমি না থাকলে

বৃষ্টি

আশা ভসলে

কোন সে আলোর স্বপ্ন

মন মেতেছে মন ময়োরী

যদি কানে কানে কিছু বলে

হাইরে কালা একি জ্বালা

আরও দূ্রে চল যাই

কেন স্ র বো নাশের নেশা

ডেকে ডেকে চলে গেছি

দ্বীপ জ্বেলে ওই তারা

কিশোর কুমার

ওগো নিরপমা

পৃথিবী বদলে গেছে

মো্র স্বপ্নের সাথী

কি আশায় বাধি খেলাঘড়

এক পলকের একটু দেখা

আশা ছিল

জগজিৎ সিং

বুজিনিত আমি

বেশী কিছু আশা করা

নদীতে তুফান এলে

জগ্ময় মিত্র

সাতটি বছর আগে

সাতটি বছর পরে

তুমি কি এখন দেখেছ স্বপন

আমি স্বপন দেখেছি

ভালভাসা মো্রে

ভু্লি নাই ভুলি নাই

মেনেছি গো হার মেনেছি

জাগো নারী

জানি জানি গো

প্রেমের তাজমহল

আমি দুরন্ত বৈশাখী

তুমিত জাননা

প্রতিমা ব্যনার্জী

এ পাড়ে গঙ্গা ওপারে গঙ্গা

সাতটি তারার এই তিমির

একটা গান লিখ ও আমার জন্য

আমার বকুল ফুল কই

বড় স্বাদ জাগে

তোমাকে কেন লাগছে এত চিনা

আধার আমার ভাল লাগে

ভূপেন হাজারিকা

আমি এক যাযাবর

আজ জীবন খুজে পাবি

হে দোলা

মানুষ মানুষের জন্য

গঙ্গা আমার মা

প্রতিধনি শুনি আমি

এক বাউ মিলে না

শহস্র জনে মোরে প্রশ্ন করে

প্রভাতী পাখিরা কেন গায়

এক খানা মেঘ বেসে এল

আমরা করব জয়

মান্না দে

আমি যে জলসা ঘরে

যদি কাগজে লিখ নাম

এ নাদী এমন নাদী

আমার ভালবাসার রাজ প্রাসাদে

শাওনো রাতে যদি

মেনেছি গো হার মেনেছি

দীপ ছিল শিখা ছিল

না না আজ রাতে আর যাত্রা

কতদিন দেখেনি তোমায়

ওগো বর্ষা তুমি

লাল নীল সবুজের

ওগো তো্মার শেষ বিচারের আশায়

হাজার টাকার ঝাড় বাতিটা

রাহুল দেব বর্মন

সে ত এলোনা

আমার মালতি লতা

একদিন পাখি ওড়ে

মনে পড়ে রুবি রয়

সতিনাথ মুখার্জী

পাষানের বুকে

আজ তুমি নেই বলে

রাত জাগা মো্র

জীবনে যদি দ্বিপ জ্বালাতে

এখনো আকাশে চাঁদ

বনের পাখি গায়

আমি চিরতরে দূরে

তুমি সুন্দর তাই

এ জীবনে আমি যারে চেয়েছি

সন্ধ্যা মুখার্জী

জানিনা ফুরাবে কবে এ পথ চলা

বাক বাক বাকুম

আমি যে জলসাগরে

তুমি নাহই রহিতে

ঘুম ঘুম ঘুম

আমারে লয়ে যে

হেমন্ত মুখার্জী

কতদিন পরে এলে

পৃথিবী্র গান আকাশ কি

এক গোছা রজনী গন্ধ্যা

সুরের আকাশে তুমি

আমায় প্রশ্ন করে নিল

একা একা থাকা

যখন ডাকল বাঁশি

আমার বলার কিছু ছিলনা

আমি ঝড়ে্র কাছে রেখে গেলাম

এমন একটা ঝড় উঠুক

এই মেঘলা দিনে একলা

পথ হারাব বলেই

বুন্ধু তোমার পথের সাথীকে

জীবনপুরের পথিকরে

মূছে যাওয়া দিনগুলি

এনেছি আমার শত জনমের প্রেম

হাজার বছর ধরে

কতদিন বলাকারা

এমন ডাগর ডাগর চুখে

জানিনা কখন তুমি

ঘরের বাঁধন ছেরেই

পৃথিবী আমারে চাই

তুমি এলে অনেক দিনের পরে যেন বৃষ্টি

এই যে নদী

বনতল ফুলে ফুলে ডাকা

তন্দ্রা হারা রাত

আজ দুজনার দুটি পথ

যাবার আগে কিছু বলে গেলেনা

মেঘ কাল আধার কাল

অলির কথা শুনে

আমি দূর হতে তোমারে দেখেছি

জীবনে যারে তুমি দাওনি মালা

পথে যেতে যেতে

এই কি গো শেষ দান

ও আকাশ প্রদীপ জ্বেলো না

সারাটা দিন ধরে

আমার গানের স্বরলিপি

কেন পথে এ চঞ্চলতা

আমার আর হবেনা দেরি

তোমাই গান শুনাব

দিবসো রজনি আমি যেন

হে নিরুপমা

শুধু তোমার বানি

যখন পরবেনা মোর পায়ের চিহ্ন

নাই নাই যে বাকি সময় আমার

অরুপ তমার বানি

মধু গন্ধে ভরা মৃদু

ওগো নদী আপন বেগে

তো্মার হল শুরু

তুমি কি কেবলি ছবি

এ পথে আমি যে গেছি বার বার

কান্দালে তুমি মোরে

আমি ফিরবনা রে

মনে রবে কিনা রবে আমারে

আমার এ পথ

যখন বাঙ্গলো মিলন মেলা

আর নাইরে বেলা নামলো ছায়া

আমার মন মানে না

বিদায় করেছ যারে

মুখ পানে চেয়ে দেখি

যাবার বেলা শেষ কথাটি

পোরানো সেই দিনের কথা

আগুনের পরশমণি

আষাঢ় সন্ধ্যা ঘনিয়ে এল

ও আমার দেশের মাটি

রবীন্দ্র সংগীত

অরুন্দতি

রুদনো বড়া এ বসন্তে

মাটির বুকের মাঝে

বনে যদি ফুটল কুসুম

উযে মানেনা মানা

আমার একটি কথা

এই স্রাবনের বুকের ভিতর

ভাঙ্গল হাসির বাধ

চিম্ময় চ্যাটার্জী

ভাল যদি ভাস

এসো এসো আমার ঘরে

বিধি ডাগর আখি কেন

প্রমোদ ঢালিয়া দে

সেদিন দুজনে

আমারও পরাণে যাহা

বলিগো সজনী

আমার জীবন পত্র

মায়া বন ভিহারিনী

সাগর সেন

চাঁদের হাসি বাধ

সখী বহে গেল বেলা

আমি জেনে শুনে বিষ

আমি তোমার প্রেমে

এরা সুখের লাগি

আমি চিনিগো চিনি

কতবার ভেবেছিনু

আজ জু্ৎস্না রাতে

মধুর বসন্ত এসেছে

ওগো ঢেকো না মোরে

ডাকব না ডাকব না

রোদনও ভরা এ বসন্তে

ক্ষমা কর মোরে

এই মালতি লতা দূলে

তুমি রবে নীরবে

হাম্‌দ/নাথ

Allah-ke-je-paite -chai

Allahte Jaar Purno Emaan

Allaho Allaho Tumi Julley Jalaluhu

Ami Jodi Arab Hotaam

Bajhche-Damama-Badhre-Amama

Dhormer-Pothe-Shahid-Zara-Amra-Shei-Jati

Hera-Hote-Ele-Dule

HeyRasulBujhiNaAmi

Khuda-Tumar-Meherbani

Mohammad-SAWS-er-Naam-Jopechili